LalmohanNews24.Com | logo

১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শ্বেতাঙ্গ তরুণের বেকসুর খালাসে বাইডেনের অসন্তোষ

শ্বেতাঙ্গ তরুণের বেকসুর খালাসে বাইডেনের অসন্তোষ

যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের কেনোশায় গত বছর বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে তিনজনের ওপর গুলি চালানোর অভিযোগে গ্রেফতার শ্বেতাঙ্গ তরুণ কাইল রিটেনহাউজকে (১৮) নির্দোষ হিসেবে মুক্তি দিয়েছে আদালত।  বিবিসি শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

আদালতের এই রায়ের ব্যাপারে নিজের অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। রায়ের পর বাইডেন জানান, কেনোশার ঘটনা নিয়ে হওয়া রায় আমার মতো অসংখ্য মার্কিনিকে ক্রুদ্ধ এবং উদ্বিগ্ন করলেও বিচারকদের সিদ্ধান্ত আমাদের মেনে নিতে হবে।

এদিকে এই রায়ের পর মার্কিন নাগরিকদের অস্ত্র বহনের অধিকার নিয়ে দেশটির জনগণের মধ্যে থাকা বিভক্তি আরও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

মার্কিন কংগ্রেসের ব্ল্যাক ককাস তাদের বিবৃতিতে রায়ের কঠোর সমালোচনা করে রিটেনহাউজকে ছেড়ে দেওয়াকে ‘অযৌক্তিক’ বলে অ্যাখ্যা দিয়েছে।

রিটেনহাউজ কৃষ্ণাঙ্গ হলে পুলিশ এবং আদালত তার প্রতি আরও ‘নির্দয়’ হতো বলে অভিযোগ তুলেছেন অনেকে।
তবে এই রায়কে রক্ষণশীলরা স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, মার্কিন সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনী যে কতটা সঠিক তা আরও একবার দেখালো শুক্রবারের রায়।

প্রসঙ্গত সংবিধানের ওই সংশোধনীই মার্কিন নাগরিকদের অস্ত্র বহনের অধিকার দিয়েছে।

পুলিশের গুলিতে এক কৃষ্ণাঙ্গ আহত হওয়ার ঘটনায় গত বছরের অগাস্টের শেষ সপ্তাহে উইসকনসিন অশান্ত হয়ে ওঠে। অগ্নিসংযোগ, দাঙ্গা, লুটতরাজের মধ্যে ২৫ অগাস্ট বর্ণবাদবিরোধী এক বিক্ষোভে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে।

ওই বিক্ষোভ চলাকালে রিটেনহাউজের গুলিতে জোসেফ রোজেনবাম (৩৬) ও অ্যান্থনি হুবার (২৬) নামে দুজন নিহত এবং গাইগে গ্রসক্রৎজ (২৮) নামে এক ব্যক্তি আহত হন।  আদালতে রিটেনহাউজ দাবি করেন, নিজেকে বাঁচাতে গুলি ছুড়েছিলেন তিনি। আদালতে শুনানির সময় তাকে কাঁদতেও দেখা যায়।

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি