LalmohanNews24.Com | logo

২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লালমোহন পল্লী বিদ্যুতের ইলেকটেশিয়ান বাবুলের কারণে গ্রাহক হয়রানীর শিকার

এ.এইচ রিপন এ.এইচ রিপন

রমাগঞ্জ ও লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়ন প্রতিনিধি

প্রকাশিত : মে ২১, ২০১৮, ১৫:১৩

লালমোহন পল্লী বিদ্যুতের ইলেকটেশিয়ান বাবুলের কারণে গ্রাহক হয়রানীর শিকার

লালমোহন পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ইলেকটেশিয়ান বাবুলের রাম রাজত্বের ফাঁদে বিদ্যুতের সাধারণ গ্রাহকরা। তার নির্ধারিত ফি ছাড়া, সে কোনো ইলেকটেশিয়ান রিপোর্ট দেন না। প্রতি মিটারে ইলেকটেশিয়ান ফি বাবৎ তাকে দিতে হয় ১ হাজার টাকা করে। তার র্ধাযকৃত টাকা না দিলে গ্রাহকদের বিভিন্নভাবে হয়রানী করতে থাকে এই বাবুল।

অভিযোগ করে উপজেলার রায়চাঁদ এলাকার মো. মফিজ ও তারেক রহমান বলেন, বিগত ৩ মাস আগে বিদ্যুৎ অফিসে পল্লী বিদ্যুতের নতুন সংযোগের জন্য আবেদন করেছি। ইলেকটেশিয়ান বাবুল আমাদের ঘরে তদন্তে আসেন। সেখানে আমাদের কাছ থেকে ১ হাজার টাকা করে দাবী করে বাবুল। তাকে টাকা না দেওয়ায় সে আমাদের কাগজপত্র লুকিয়ে রেখে বিভিন্নভাবে হয়রানী করে।

সোমবার মিটারের টাকা জমা দিতে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে গেলে বাবুল বলে আপনাদের কোনো কাগজপত্র অফিসে নেই এবং আপনাদের আমি চিনি না। পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের রফিজুল ইসলামের নামের একজন জানান, কোনো গ্রাহককে ইলেকটেশিয়ান রিপোর্ট নিতে হলে ৫ শত টাকা করে দিতে হয়।

ঘটনা শুনে স্থানীয় এক সাংবাদিক বাবুলের কাছে ফোন বরলে সে ওই গ্রাহককে অফিসে যেতে বলে। ওই গ্রাহক অফিসে গেলে বাবুল ইলেকটেশিয়ান রিপোর্টের জন্য ১ হাজার টাকা ও দুইটি নতুন সংযোগের জন্য ব্যাংকে ৮ শত টাকা করে জমা দিতে বলেন।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন যাবৎ বাবুল গ্রামের সাধারণ গ্রাহকদের কাছ থেকে ৪-৫ হাজার টাকা নিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ দেন। সাধারণ গ্রাহকদের দাবী বাবুলের এই স্বৈরচারিতা বন্ধে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে সুদৃষ্টি দেওয়ার।

হাসান পিন্টু

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি