LalmohanNews24.Com | logo

৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লালমোহনে বৃদ্ধ মা ও তার দুই মেয়েকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

ইব্রাহিম আকাশ ইব্রাহিম আকাশ

সহযোগি বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত : অক্টোবর ০৮, ২০২১, ১৯:০৩

লালমোহনে বৃদ্ধ মা ও তার দুই মেয়েকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

ইব্রাহিম আকাশ। লালমোহনে নিজ বাড়ীর যাওয়া আসার পথে কাটা দেয়ায় কথার কাটাকাটিতে মা ও দুই মেয়েকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড চরকচ্চপিয়া গ্রামের বাসিন্ধা বৃদ্ধ সংসী বিবি (৭০) তার স্বামীর বাড়ীতে প্রায় ৫৫ বছর যাবত বসবাস করে আসছেন। তার স্বামী মৃত সেকান্দার অনেক আগেই গত হয়েছেন। সংসী বিবির ১ ছেলে বাকপ্রতিবন্ধী, ২ মেয়ের মধ্যে সারজু (৫০) বিধবা হয়ে মায়ের সাথে থাকেন। আর এক মেয়ে ঢাকায় বাসা বাড়ীতে কাজ করে। সংসী বিবির স্বামী মরার পর স্থানীয় গজনবীর লোলুপদৃষ্টি পড়ে তার স্বামীর রেখে যাওয়া সম্পত্তির উপর। কিছুদিন পূর্বে বাড়ী থেকে আসা যাওয়ার রাস্তায় মোরগের ঘর নির্মান করে গজনবী। এরপর পাশে কাটা দিয়ে বেড়া দিয়ে রাখে যাতে সংসী বিবিরা বের হতে না পারে। ঘটনার দিন বুধবার সংসী বিবির বিধবা মেয়ে সারজু গরুর খবারের জন্য ভাতের মাড় আনতে যাচ্ছিল বাড়ীর পথ দিয়ে। তখন গজনবীর স্ত্রী ও মেয়েরা তাকে এই পথে কেন আসছে এবং এই পথ তাদের বলে তর্কবিতর্ক শুরু করে। এক পর্যায়ে গজনবীর স্ত্রী, ২ মেয়ে, মেয়ের জামাই সোহাগ সকলে মিলে সারজুকে লাঠি দিয়ে মারতে থাকে। সোহাগ সারজুর গলা টিপে ধরে। সারজুর ডাক চিৎকারে তার মা বৃদ্ধ সংসী বিবি এবং বোন লুৎফা সেখানে আসলে তাদেরকেও তারা বেদম মারপিট করে। মারখেয়ে সারজুর আবস্থা খারাপ হলে বৃহস্পতিবার তাকে লালমোহন হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে সে হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় রয়েছে। সংসী বিবি ও তার মেয়ে লুৎফা বলেন, সারজু ভালো হলে গজনবী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে আইন আনুক ব্যবস্থা নিব । এ ব্যাপারে অভিযুক্ত গজনবীর স্ত্রী হাসিনা তাদের বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার মেয়েকে তারা মেরে মেয়ের ২ টি দাত ভেঙ্গে দিয়েছে। সে এখন ভোলাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি