LalmohanNews24.Com | logo

২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভোলায় দ্বীপক নাগের বিরুদ্ধে মামলা

ভোলায় দ্বীপক নাগের বিরুদ্ধে মামলা

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলায় বন্ধকি ও নগদ প্রায় ৩ কোটি টাকা নিয়ে উধাও হওয়া স্বর্ণ ব্যবসায়ী দ্বীপক নাগের রিুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার রাতে আসমা আক্তার বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। মামলায় ওই পরিবারের সকল সদস্য ছাড়াও আরো অনেককে আসামী করা হয়েছে। বর্তমানে দ্বীপক নাগের ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে ঝুলছে অন্তত ২০টি তালা। স্বর্ণ ব্যবসায়ী দ্বীপক নাগ প্রায় ৩ কোটি টাকা নিয়ে স্ব-পরিবারে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাটি এখন ভোলার ‘টক অব দ্যা জেলা’য় পরিনত হয়েছে। শুধু শহর নয়, গ্রামাঞ্চলের যেখানেই দু’চার জন লোক জড়ো দেখা যায়, সেখাইন চলছে দ্বীপক নাগকে নিয়ে আলোচনা। এমনকি জেলা শহর নয়, উপজেলা শহরগুলোতেও দ্বীপক নাগকে নিয়ে আলোচনা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সবার মুখে মুখে একটাই আলোচনা দ্বীপক নাগ। ব্যবসায়ী ও বন্ধকি লোকজন ছাড়াও সাধারণ মানষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। শুধু টাকা আর স্বর্ণালংকার নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়া নয়, আস্তে আস্তে বেরিয়ে আসছে দ্বীপকের নান অপকর্মের কাহিনী।

এ ব্যাপারে কথা হয় আসমা আক্তারের সাথে। তিনি বলেন, আমি বাদী হয়ে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি। যার নং-৬৮। ওই মামলায় দ্বীপক নাগের পরিবারের সকল সদস্যদের আসামী করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, গত বছর (২০১৭) সালের নভেম্বর মাসে নগদ ও স্বর্ণালংকার মিলিয়ে অন্তত ১৯ লাখ টাকা দিয়েছেন দ্বীপক নাগকে। এখন তার সব শেষ হয়ে গেছে। দ্বীপক নাগের টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় ভোলার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার এর ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং বিচার এর আশ্বাসে আমরা ক্ষতিগ্রস্তরা আশার আলো দেখতে পাচ্ছি। তাই মামলা করেছি। আশা করছি পুলিশ প্রশাসন দ্বীপক নাগকে বাংলাদেশে এনে ক্ষতিগ্রস্তদের টাকা ও স্বর্ণালংকার আইনের মাধ্যমে দেয়ার ব্যবস্থা করবেন। শুধু আমি একা নই; আমার চেয়ে অনেক বেশি টাকা আর স্বর্ণালংকার রেখেছেন তার কাছে অনেকেই। এখন তারা সামাজিক কারণে সামনে আসতে পারছেন না।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো ঃ ছগির মিয়া জানান, দ্বীপক নাগ টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় গত ২৫ এপ্রিল বুধবার রাতে আসমা আক্তার বাদি হয়ে নাগ অলংকার নিকেতন এর মালিক দ্বীপক নাগ ও তার পরিবারে সকলে বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। যার নং-৬৮। আমরা এখন আইনের মাধ্যমে দ্বীপক নাগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবো। এজন্য একজন অফিসারকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে সবকিছু দেখ-ভাল করার জন্য। তিনি কাজ শুরু করে দিয়েছেন। এর সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

হাসান পিন্টু

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি