LalmohanNews24.Com | logo

৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘ঝর্ণাকে বিয়ের তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি মামুনুল’

‘ঝর্ণাকে বিয়ের তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি মামুনুল’

হেফাজতের ইসলামের বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের উস্কানিমূলক বক্তব্যের কারণেই নাশকতার ঘটনা ঘটেছে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন তিনি। নাশকতার মামলাগুলোতে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে অনেককে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পেরেছি। আমাদের কাছে আরও তথ্য আছে, যা যাচাই-বাছাই চলছে। যারা জড়িত আছেন আমরা তাদেরও আইনের আওতায় নিয়ে আসতে সক্ষম হবো। গতকাল দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে মামুনুল হকের রিমান্ড ইস্যুতে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের (এসপি) জায়েদুল আলম। এ সময় পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) নারায়ণগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মনিরুল হক, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মেহেদী ইমরান সিদ্দিকীসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে এসপি জায়েদুল আলম আরও বলেন, বিভিন্ন দেশি ও আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক সংগঠন হেফাজত ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হকের সংশ্লিষ্টতা থাকার প্রাথমিক তথ্য পাওয়া গেছে। মূলত রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যাওয়ার উচ্চাবিলাসিতা থেকেই নাশকতাসহ অপরাধে জড়ান তিনি।

এ ছাড়াও পুলিশ রিমান্ডে মামুনুল হককে জিজ্ঞাসাবাদে জান্নাত আরা ঝর্ণার দায়েরকৃত ধর্ষণ মামলার ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ধর্ষণ মামলাটি আমরা গুরুত্বসহ দেখছি। সেই মামলায় জান্নাত আরা ঝর্ণা যে বক্তব্য দিয়েছেন, আমরা সেই বক্তব্যের ব্যাপারে রিমান্ডে মামুনুল হককে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি এবং সত্যতা পেয়েছি। ধর্ষণ মামলায় জিজ্ঞাসাবাদে বিয়ের কোনো বৈধ কাগজপত্র বা তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি। শরিয়ত মোতাবেক বা দেশের আইনি কাঠামো অনুসারে বিয়ের কোনো তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেননি তিনি। খুব শিগগিরই এই মামলার রিপোর্ট আমরা আদালতে দাখিল করতে পারবো বলে আশাবাদী। এসপি জায়েদুল আলম বলেন, ২৮শে মার্চ দেশবাপী কথিত হরতালের নামে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত নাশকতার ঘটনার আগে ২৫শে মার্চ মামুনুল হক নারায়ণগঞ্জে আসেন। তার উস্কানিমূলক বক্তব্য নাশকতায় সাহস জুগিয়েছে বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি স্বীকার করেছেন। এছাড়াও রিমান্ডে মামুনুল অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তিন তদন্তকারী সংস্থাকে নিয়ে এসব তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। তদন্তের পর এসব বিষয়ে সুস্পষ্টভাবে বলা যাবে।
Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি