LalmohanNews24.Com | logo

৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জার্সি নিয়ে মেসির আফসোস

জার্সি নিয়ে মেসির আফসোস

একজন ফুটবল ইতিহাসে কিংবদন্তি হয়ে আছেন। আরেকজন খেলোয়াড়ী জীবনেই কিংবদন্তি। বলা হচ্ছিল ব্রাজিল মহাতারকা রোনালদো নাজারিও আর আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসির কথা। একসময় ফুটবলবিশ্ব শাসন করেছেন রোনালদো। এখন করেন মেসি। তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর নামও রোনালদো; তবে তিনি পর্তুগালের।

ম্যাচ শেষে সম্প্রীতিস্বরূপ প্রতিপক্ষের সঙ্গে জার্সি বদল করার একটা রীতি আছে। মেসি সেসব জার্সি কিন্তু যত্ন করে সংরক্ষণ করেছেন। বছরের পর বছর ধরে জার্সি অদল-বদল করে সংরক্ষণ করায় মেসির বাড়ি যেন এখন জার্সির সংগ্রহশালা। সেই সংগ্রহশালায় আছে তান ইব্রাহিমোভিচ থেকে শুরু করে পিকে, সুয়ারেজ, টট্টি, ফ্যাব্রিগাস কিংবা দানি আলভেস, ইকার ক্যাসিয়াস, রাউল গঞ্জালেস, ডেকো, আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো-সবার জার্সি।

তবে শুক্রবার (২১ মে) প্রকাশিত হওয়া ওই সাক্ষাৎকারে মেসি জানান, এমন কিছু খেলোয়াড় আছেন, যাদের জার্সি সংগ্রহে না থাকা তাকে পোড়ায়। তাদের মধ্যে একজন হলেন রোনালদো। তবে, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো নন। ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক স্ট্রাইকার রোনালদো নাজারিওর জার্সি না থাকার ব্যাপারটা মানতেই পারেন না মেসি।

আর্জেন্টাইন সুপারস্টার বলেন, আমি যখন বড় হই তখন আমি জার্সি পছন্দ করতে শুরু করি। এর আগে মনোযোগ দিইনি। রোনালদো (নাজারিও) বা রবার্তো কার্লোসের মতো খেলোয়াড়দের বিপক্ষে আমি যখন ছোট ছিলাম তখনই মুখোমুখি হয়েছিলাম। তাদের থেকে জার্সি না চাওয়ায় এখন আফসোস করি। আমি এই জার্সিগুলো থাকলে খুব খুশি হতাম।

এছাড়া, সব সময় জার্সি বদল করলেও, এমন কিছু সময় আসে, যখন জার্সি বদল করতে ইচ্ছা করে না তারকা ফুটবলারের। মেসি বলেন, এটা অনেকবারই হয়। আমি সবসময় জার্সি বদল করি। তবে এর বাইরে যখন আমি রাগান্বিত থাকি সরাসরি স্টেডিয়ামে ত্যাগ করি।

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি