LalmohanNews24.Com | logo

১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

এমপি-মন্ত্রী হলেও আরচণবিধি প্রশ্নে নমনীয় হবে না কমিশন: ইসি রফিকুল

এমপি-মন্ত্রী হলেও আরচণবিধি প্রশ্নে নমনীয় হবে না কমিশন: ইসি রফিকুল

চলমান ইউপি নির্বাচনের পরিবেশ বিঘ্ন করার চেষ্টার বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মোহা. রফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, মন্ত্রী-এমপি যেই হোক, আচরণবিধি প্রশ্নে কমিশন কোনো নমনীয়তা দেখাবে না। প্রয়োজনে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

রোববার বিকালে রাজশাহীর পবা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নির্বাচনী প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রফিকুল ইসলাম।

রফিকুল ইসলাম বলেন, ভোট কেন্দ্র করে কোনো মায়ের বুক খালি হোক কমিশন তা চায় না। আমি রাজশাহীর মানুষ হিসেবে বিশ্বাস করি, আমাদের অঞ্চলের মানুষ খুবই শান্তিপ্রিয়। নির্বাচনসংশ্লিষ্টদের সদিচ্ছা থাকলে কোথাও কোনো সমস্যা থাকবে না। কোনো মায়ের বুক খালি হবে না। ভোট হবে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ। এ জন্য প্রশাসনের যেমন দায়িত্ব আছে, তেমনি নির্বাচন কমিশনের দায় আছে। সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

নির্বাচন কমিশনার আরও বলেন, পরবর্তী ইউপি নির্বাচনগুলোতে বিপুলসংখ্যক বিজিবি, র্যা ব, পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হবে। কাউকে মারার ও পক্ষাবলম্বনের জন্য নয়; সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ভূমিকা রাখতে হবে। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ভোটকেন্দ্রে কেউ ব্যালট লুট করতে এলে পুলিশ সেখানে বসে থাকবে না। পরিস্থিতি যদি বাধ্য করে, পুলিশ সেখানে গুলি করতে বাধ্য হবে।

রফিকুল ইসলাম বলেন, নাগরিকের ভোট, ভোটের সরঞ্জাম রক্ষা ও সংশ্লিষ্টদের নিরাপত্তার জন্য আইনের বিধান রয়েছে। নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য করতে সরকার সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাসী ও বিশৃঙ্খলাকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না।

তিনি প্রার্থীদের উদ্দেশে বলেন, কারও দীর্ঘশ্বাস নিয়ে নির্বাচিত হবেন না।  আমরা কিন্তু কাউকে ছাড়ব না।

পাশাপাশি তিনি বলেন, ভোটগ্রহণ কাজে সংশ্লিষ্টরা কোনো স্বজনপ্রীতি ও স্বজনের আপ্যায়ন ও পক্ষপাতপুষ্ট হলে ছাড় দেওয়া হবে না। অনিয়ম করলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ইতোমধ্যে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু অভিযোগ এসেছে। আমরা সেগুলো তদন্ত করছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও তদন্ত করছে।

প্রশিক্ষণ ও প্রশাসনিক এ কর্মশালায়  আরএমপির  অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) মো. সুজায়েত ইসলাম বলেন, ভোটের পরিবেশ সুন্দর রাখতে দুষ্টচক্রকে আগাম চিহ্নিত করা হচ্ছে। ভোটাররা যাতে অবাধে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন সে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রিসাইডিং অফিসারদের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, ভোটকেন্দ্রের বাইরের পরিস্থিতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেখবে। আপনারা ভেতরের পরিস্থিতি ঠিক রাখবেন। সবাই একসঙ্গে নিরপেক্ষভাবে কাজ করলে রাজশাহীতে আগামী  ২৮ নভেম্বরের ভোট সুষ্ঠু ও অবাধ হবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি রাজশাহীর জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল জলিল প্রিসাইডিং অফিসারদের উদ্দেশে বলেন, ভোটগ্রহণ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করে কেন্দ্রভিত্তিক ফল ঝুলিয়ে দেবেন। দ্রুতসময়ে আপনারা রিটার্নিং অফিসারের কাছে ফলের প্রতিবেদন দেবেন।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, বিকাল ৫টায় ভোটগ্রহণ শেষ হলেও অনেক কেন্দ্রের ফল রাত ১০টাতেও পাওয়া যায় না। পরবর্তী ভোটে যেন এমনটি না হয়, তা জোর দিয়ে বলেন জেলা প্রশাসক। ভোট গণনা ও ফল ঘোষণায় বিলম্ব হলে নানারকম গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এর ফলে কোথাও কোথাও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। প্রিসাইডিং অফিসারদের এই বিষয়ে আরও  সজাগ ও সতর্ক  হতে হবে।

পবা উপজেলা নির্বাচন অফিসার শহিদুল ইসলামের পরিচালনায় প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন রাজশাহী অঞ্চলের নির্বাচন কর্মকর্তা মোহা. ফরিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও লসমী চাকমা, আরএমপির উপপুলিশ কমিশনার (শাহমখদুম) মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার সাইফুল ইসলাম, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ এহসান উদ্দীন প্রমুখ।

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি