LalmohanNews24.Com | logo

২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১১ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং

৩ সিটিতেই আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিজয় দেখছেন জয়

৩ সিটিতেই আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিজয় দেখছেন জয়

বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয় দেখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগবিষয়ক উপদেষ্টা ও তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়।

আজ রোববার নিজের ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে তিনি জানিয়েছেন, তার নিয়োজিত একটি গবেষণা দলের জনমত জরিপে তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনেই আওয়ামী লীগ প্রার্থী এগিয়ে রয়েছেন।

বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেটে ভোটারদের ওপর চলতি জুলাইজুড়ে এ গবেষণা চালিয়েছে রিসার্চ ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (আরডিসি)।

তিনি বলেন, আরডিসির সঙ্গে গত পাঁচ বছর ধরে আমাদের জনমত জরিপ চালিয়ে আসছি। গবেষণায় তাদের পদ্ধতি ও ফল সঠিক বলেই পেয়েছি আমি।

তিনি আরও বলেন, আমি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলতে পারি- বরিশাল ও রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের ভূমিধস বিজয় হবে। সিলেটে আমরা সামান্য এগিয়ে, জয়ী হবই এমনটি বলা মুশকিল।

জরিপের ফল ও তার বক্তব্য এখানে হুবহু দেয়া হল-

বরিশাল

সেরনিয়াবাদ সাদিক আবদুল্লাহ (আওয়ামী লীগ)-৪৪ দশমিক শূন্য শতাংশ

মজিবর রহমান সরোয়ার (বিএনপি)-১৩ দশমিক ১ শতাংশ

অন্যান্য প্রার্থী- শূন্য দশমিক ৮ শতাংশ

সিদ্ধান্তহীন-২৩ দশমিক ৫ শতাংশ

জবাব দিতে অস্বীকার-১৫ দশমিক ৯ শতাংশএক হাজার ২৪১ ভোটারের ওপর এ জরিপ পরিচালিত হয়েছে।

রাজশাহী

খায়রুজ্জামান লিটন(আওয়ামী লীগ)-৫৮ দশমিক শূন্য শতাংশ

মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল(বিএনপি)-১৬ দশমিক ৪ শতাংশ

অন্যান্য প্রার্থী- শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ

সিদ্ধান্তহীন- ১২ দশমিক ৩ শতাংশ

জবাব দিতে অস্বীকার- ৯ দশমিক ৬ শতাংশএক হাজার ২৯৪ ভোটারের ওপর এ জরিপ চালানো হয়।

সিলেট

বদরউদ্দিন আহমদ কামরান (আওয়ামী লীগ)-৩৩ দশমিক শূন্য শতাংশ

আরিফুল হক চৌধুরী (বিএনপি)-২৮ দশমিক ১ শতাংশ

অন্যান্য প্রার্থী-১ দশমিক ৩ শতাংশ

সিদ্ধান্তহীন-২৩ দশমিক শূন্য শতাংশ

জবাব দিতে অস্বীকার-১২ দশমিক ৬ শতাংশএকহাজার ১৯৬ ভোটারের ওপর এ জরিপ চালানো হয়।

বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট শহরে ২০১১ সালের আদমশুমারির বয়স বিভাজন ও সিটি কর্পোরেশনগুলোর ভোটার তালিকার ভিত্তিতে জরিপ পরিচালনা করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের ভোটার নিবন্ধের তালিকায় থাকা ঠিকানা ধরে জরিপে অংশগ্রহণকারী নির্বাচন করা হয়।

সিটি কর্পোরেশনের ভোটার তালিকায় যাদের নাম রয়েছে, তাদেরই কেবল জরিপে প্রশ্ন করা হয়েছে। এতে মার্জিন অফ এরর হতে পারে প্রায় +/- ২ দশমিক ৫ শতাংশ।

জয় বলেন, গত পাঁচ বছর ধরে আরডিসিকে দিয়ে আমাদের জনমত জরিপ পরিচালনা করে আসছি। জরিপে তাদের পদ্ধতি ও ফল সবচেয়ে সঠিক বলে মনে হয়েছে।

তিনি বলেন, অবশ্যই গতকাল মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচার পূর্ণোদ্যমে চলেছে। জনমত জরিপের ফল হয়তো সামান্য হেরফের হতে পারে। কারণ পুরো মাসজুড়ে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

কিন্তু আমি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলতে পারি- বরিশাল ও রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের বিপুল বিজয় হবে। সিলেটে আমরা সামান্য এগিয়ে। তবে সেখানে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগবিষয়ক উপদেষ্টা

তিনি বলেন, বিএনপি সব ধরনের অভিযোগ করে যাচ্ছে। কিন্তু ঘটনা হচ্ছে- তারা সবটুকু জনপ্রিয়তা হারিয়েছে। বিপরীতে গত কয়েক বছরে আওয়ামী লীগ ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। আওয়ামী লীগের জন্য বিএনপি কোনো নির্বাচনী হুমকি নয়।

জয় বলেন, ভোটকেন্দ্র দখল ও ব্যালট ছিনতাই করে আওয়ামী লীগের ওপর দায় চাপাতে চেষ্টা করবে বিএনপি। এ ব্যাপারে দলের সদস্য, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সতর্ক থাকতে বলব।

নির্বাচন বিতর্কিত করতে বিএনপির তৎপরতার বিষয়ে তিনি বলেন, আপনারা এবারের গাজীপুর নির্বাচনে বিএনপি নেতাদের রেকর্ড করা কথোপকথন শুনেছেন। প্রচারের সময় ভোটারের সঙ্গে যখন কথা বলেছেন, তখন তারা বুঝতে পেরেছেন তাদের জয়ের কোনো সুযোগ নেই। ফলে তারা এখন নির্বাচনী বিতর্ক তৈরি করতে আওয়ামী লীগকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করবে।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি