LalmohanNews24.Com | logo

১১ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং

লালমোহনে থামছে না অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম!

লালমোহনে থামছে না অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম!

ভোলার লালমোহনে খাবারের সাথে নেশা খাইয়ে অচেতন করে একের পর এক ঘর চুরি করে যাচ্ছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। কোনো মতেই থামছে না এ চক্রের এসকল কার্যক্রম। সম্প্রতি বুধবার রাতে লালমোহন পৌর শহরের ৮নং ওয়ার্ডের জীবন হাওলাদার বাড়িতে আড়ৎদার মাসুদের পরিবারের সকলেকে অচেতন করে স্বর্ণালংকার, মালামাল ও নগদ টাকা নিয়ে যায় অজ্ঞান পার্টির লোকজন। ওই চক্রের খাওয়ানো নেশায় অজ্ঞান হয়ে যায় আ. মোতালেব, মাসুদ, রুবিজা, হাজেরা, তামান্না ও পিন্থু। পরে বৃহস্পতিবার সকালে তাদের লালমোহন সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, মাসুদের ঘরের লোকজন রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে পড়লে সবাই অচেতন হয়ে পড়ে। এ সুযোগে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা রাতে পাকা ঘরের ভেন্টিলেটর কেটে ঘরে প্রবেশ করে। এসময় ঘরে থাকা স্বর্ণালংকার, মালামাল ও নগদ টাকা নিয়ে যায়। রাত পোহালে আশেপাশের ঘরের লোকজন উঠলেও ওই ঘরের কেউ উঠেনি। তাই বাড়ির অন্যান্য লোকেরা ঘরে প্রবেশ করে ওই ঘরের সকলকে অজ্ঞান দেখে তাৎক্ষনাক তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

লালমোহনে বিগত ১ বছর ধরে অজ্ঞান পার্টির এমন কর্মকান্ডে নাজেহাল হয়ে পড়ছে এ উপজেলার সাধারণ মানুষ। দিন দিন এখানে বেড়েই চলছে অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম। অজ্ঞান পার্টির খপ্পর থেকে বাঁচতে পারেনি কেউই। সর্বস্তরের মানুষের সাথেই এ ধরনের কর্মকান্ড অব্যাহত রেখেছে এ উপজেলার অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। এসব কর্মকান্ড বন্ধ করতে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন উপজেলার জনগণ।

এবিষয়ে লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খায়রুল কবীর বলেন, এটা বন্ধ করতে প্রথমে প্রয়োজনে ব্যাপক জনসচেতনতা। তাহলেই এধরনের কর্মকান্ড অনেকাংশে কমে যাবে। তারপরেও আমারা প্রশাসনিকভাবে অজ্ঞান পার্টির সদস্যদের নির্মূল করতে নিরলসভাবে কাজ করছি। আমরা এর আগে পার্টির অনেক সদস্যদের গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছি। আশা করি খুব শিগগিরই এ অজ্ঞান পার্টিকে নির্মূল করতে পারবো।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি