LalmohanNews24.Com | logo

১লা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং

লালমোহনের মেঘনায় ২ ট্রলার ডুবি: ২৪ ঘন্টা সাগরে ভেসে থাকার পর ১৫ জেলেকে উদ্ধার ॥ ১জন নিখোঁজ

মোঃ জসিম জনি মোঃ জসিম জনি

সম্পাদক ও প্রকাশক

প্রকাশিত : জুলাই ৩১, ২০১৮, ২১:০৭

লালমোহনের মেঘনায় ২ ট্রলার ডুবি: ২৪ ঘন্টা সাগরে ভেসে থাকার পর ১৫ জেলেকে উদ্ধার ॥ ১জন নিখোঁজ

২৪ ঘন্টা সাগরে ভেসে থেকে মৃত্যুর সাথে লড়ে বেঁচে ফিরে এসেছে লালমোহনের ১৫ জেলে। তবে এক জেলে এখনো নিখোঁজ রয়েছে। এসময় পর্যন্ত তারা জালের ফ্লুইড ও তেলের কনটেইনার ধরে সাগরে ভেসে থেকেছে। একদিন এক রাত ভেসে থাকার পর মঙ্গলবার সকাল ৮টায় চরফ্যাশনের একটি মাছ ধরা ট্রলার তাদের উদ্ধার করে।

উদ্ধারকৃত ১৫ জেলেকে লালমোহন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এছাড়া মঙ্গলবার বিকেলে একই স্থানে লালমোহনের আরেকটি ট্রলার ডুবে গেছে। ওই ট্রলারে থাকা ১৪ মাঝি মাল্লাকে পাশ্ববর্তী আরেকটি ট্রলার উদ্ধার করে। এদের সকলের বাড়ি লালমোহন ধলীগৌরনগর ইউনিয়নের কামারের খাল ও বাতিরখাল এলাকায়।

উদ্ধার হওয়া মোঃ জসিম মাঝি জানান, তারা এফভি জিহাদ নামে ফিরোজ মাঝির একটি ইলিশ মাছ ধরা ট্রলার নিয়ে ১৬ জন মাঝি মাল্লা ধলীগৌরনগর বাতিরখাল থেকে সাগরে মাছ ধরতে যান। সোমবার মেঘনা নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় কালকিনির পূর্ব পাশে তিন চর নামক স্থানে গেলে হঠাৎ ঝড়ের কবলে পরে ট্রলারটি কাত হয়ে ডুবে যেতে থাকে। এসময় ট্রলারের মাঝি মাল্লারা জাল থেকে ফ্লুইড কেটে ও তেলের কনটেইনার ধরে নদীতে ভেসে থাকে।

সারাদিন ও সারা রাত ভেসে থাকার পর ক্লান্তি ও আতংক দেখা দেয় তাদের মধ্যে। মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়া এ জেলেরা মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে দূরে একটি ট্রলার দেখতে পেয়ে পরনের লুঙ্গি উঠিয়ে ইশারা করে। পরে চরফ্যাশনের সা¤্রাজ এলাকার রহমান মাঝির ওই ট্রলার এসে ১৫ জনকে উদ্ধার করলেও নুরুদ্দীনকে উদ্ধার করতে পারেনি। উদ্ধারকৃত ১৫ জনকে সা¤্রাজ এলাকা থেকে মঙ্গলবার দুপুরে লালমোহন হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। উদ্ধার হওয়া মাঝি মাল্লারা হলো, জসিম মাঝি, জাকির, মাকসুদ, জাহাঙ্গীর, হাসেম, মহিউদ্দিন, লিটন, নুর ইসলাম, সালাউদ্দিন, রিপন, সাজু, আলমগীর, সবুজ, মিজান ও রুবেল।

অন্যদিকে মঙ্গলবার বিকেলে একই এলাকায় ধলীগৌরনগর বাতিরখালের আব্দুল আলী মাঝির একটি মাছ ধরা ট্রলার ১৪ মাঝি মাল্লা নিয়ে ডুবে যায়। পরে তাদের হাতিয়ার একটি ট্রলার উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃতদের বাতিরখাল থেকে ২ টি ট্রলার গিয়ে লালমোহন নিয়ে আসে বলে জানান বাতিরখালের আড়ৎদার ইউসুফ মিয়া।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি