LalmohanNews24.Com | logo

১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বর্ণমালা ,আমাকে তুমি ক্ষমা করো

বিজ্ঞাপন

বর্ণমালা ,আমাকে তুমি ক্ষমা করো

মনিরুজ্জামান, বোরহানউদ্দিন সংবাদাতা।। বর্ণমালা,আমাকে তুমি ক্ষমা করো। ৫৫ বছর বয়সে এসে আজও আমি তোমাকে ঠিকমতো চিনতে পারছি না।বলতে পারছি না ঠিকমতো।বোরহানউদ্দিন নিরক্ষর স্কুলের ছাত্র পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের আবুল কাসেম’র ছেলে আব্দুর রহমান আবেগের সাথে এমন কথা বললেন।৩ ছেলে ও মেয়ের জনক আব্দুর রহমান।আদি নিবাস উপজেলার গংগাপুর ইউনিয়নে।ছোট বয়সে বাবা মারা যায়, অন্যদিকে তেতুলিয়ার সব কেড়ে নেয়।অভাব-অনটনের কারনে স্কুলের গন্ডি মারাতে পারেনি।জীবন-জীবিকার তাগিদে বই খাতার পরিবর্তে রিকসা চালায়।ছেলে মেয়েদেরকে পড়িয়েছেন।বয়স হয়ে যাওয়ার বর্তমানে উপজেলা মৎস্য অফিসে কাজ করছেন।জীবনের স্মৃতিময় ঘটনা বলতে গিয়ে বেশ হতাশার সাথে বলেন,আজ থেকে ৫ বছর আগের ঘটনা।মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান।অনেক লোকের উপস্থিতি। কাজি সাহেব কাবিন নামায় দস্তগত দিতে বললেন।আমিতো দস্তগত জানিনা।টিপসই দিতে হবে।ওই সময় কাজির কথায় বেশ লজ্জা পাই।এ বয়সে কি আর স্কুলে যাওয়া সম্বব।বর্তমান ইউএনও স্যার এখানে আসার পর আমাগো জন্য এ সুযোগটা চালু হয়।

প্রায় ৬০ বছর বয়সী ৪ সন্তানের জনক আরেক নিরক্ষর ছাত্র আবুল কাসেম জানান,ছেলেকে স্কুলে ভর্তি পরীক্ষার সময় ফরমে টিপ দেওয়ার সময় বিব্রত অবস্থায় পরি।তিনি বলেন সবকিছু (উপকরণ) ইউএনও স্যার দেয়।টিপসই আর দিমু না।আরবী শিখে শুদ্ধমতো নামাজ পড়তে পারব।
বোরহানউদ্দিন উপজেলা প্রশাসন এর উদ্যোগে গত ৬ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যতিক্রমধর্মী এই “নিরক্ষর স্কুল”উদ্বোধন করেন অস্টেলিয়া-বাংলাদেশ প্রেস এন্ড মিডিয়া সেক্রেটারি প্রবাসী আব্দুর মতিন।স্কুলটি উদ্বোধনের পর থেকে সপ্তাহের প্রতি শুক্রবার ঘন্টাব্যাপী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এর কার্যক্রম চলে।কলেজ শিক্ষক,উপজেলা প্রশাসনের অফিসারগন স্কুলটিতে শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন।বর্তমানে স্কুলটিতে নতুন সংযোগ হয়েছে ধর্মীয় শিক্ষা।যে কোন বয়সের অক্ষরজ্ঞানহীন ব্যক্তিকে আশার আলো দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

বোরহানউদ্দিন আব্দুল জব্বার কলেজের অধ্যক্ষ এসএম গজনবী ,মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইঞ্জি আহমেদ উল্যাহ ,হিন্দু বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বাবু অনিল চন্দ দে বলেন- বিভিন্ন বয়সের নিরক্ষর মানুষদের খুজেঁ এনে ভর্তি করাতে হয়।কাজটি বেশ কঠিন।অক্ষরজ্ঞান ও ধর্র্মীয় শিক্ষায় প্রতিনিয়ত আলো বিলাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। সমাজে পরিবর্তনে বর্তমান ইউএনও’র মতো লোকদের বেশ দরকার।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ও উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোঃ আঃ কুদদূস বলেন,নিরক্ষর ব্যক্তি অন্ধের মতোই। সরকারের সামিিজক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তাবেষ্টনীতে থাকা অনেক সুবিদাভোগী মানুষ নিরক্ষর হওয়ার কারনে নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি হয় ।তাই তাদেরকে এ অন্ধকার থেকে আলোয় আনতে হবে।সব সময় এবং সব বয়সে শিক্ষা গ্রহণ করা যায় এই ম্যাসেজটি নিরক্ষরদের মাঝে ছড়িয়ে দিয়ে তাদেরকে শিক্ষা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি