LalmohanNews24.Com | logo

২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রতিবন্ধিকে গরম পানিতে ঝলসে দিয়েছে হোটেল মালিক, উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠালো পুলিশ

প্রতিবন্ধিকে গরম পানিতে ঝলসে দিয়েছে হোটেল মালিক, উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠালো পুলিশ

ভোলার লালমোহনে সুমন নামের এক প্রতিবন্ধিকে গরম পানি মেরে ঝলসে দিয়েছে জনতা হোটেলের মালিক ও কর্মচারীরা। মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারী) রাতে লালমোহন পৌর শহরের চৌরাস্তার মোড়ে অবস্থিত জনতা হোটেলে এ ঘটনা ঘটে। এরপর স্থানীয়দের সহযোগিতায় সুমনকে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে সুমনের অবস্থা খারাপ হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল নিতে বলেন। আর্থিক অভাবের কারণে আহত সুমনকে উন্নত চিকিৎসা করাতে পারছেন না স্বজনরা।

পরে বিষয়টি পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রাসেলুর রহমান ও লালমোহন থানার ওসি মাকসুদুর রহমান মুরাদের নজরে আসলে তারা সুমনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। এদিকে রাতে আহত সুমনের ভাই ছানাউল্যাহ বাদী লালমোহন থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর হোটেল মালিক নেছারসহ দুইজনকে আটক করে পুলিশ। পরে বুধবার সকালে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন লালমোহন থানার ওসি মাকসুদুর রহমান মুরাদ।

জানা যায়, সুমন ওরফে নোমান ঘটনার সময় চৌরাস্তার মোড় জনতা হোটেলে পানি পান করার জন্য আসে। এসময় রাগের বসে হোটেল মালিক ও কর্মচারীরা মিলে তাকে গরম পানি মারে। পরে প্রতিবন্ধী সুমনের চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহত সুমন উপজেলার চরভূতা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড জনতা বাজার এলাকার বারু হাওলাদার বাড়ির কাউছার আহাম্মদের ছেলে। তার ডান হাত ও ডান পা অচল। তারপরও সে ভিক্ষা করে না। সে হেঁটে হেঁটে চকলেট বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করে।

সুমনের মা রহিমা বেগম বলেন, আমরা আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল। তাই ছেলেকে চিকিৎসা করাতে পারছি না। পুলিশ সুমনকে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করেছেন। তবে সেখানে কত টাকা লাগে তা জানা নেই। আমি সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি