LalmohanNews24.Com | logo

৩রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৬ই জুন, ২০১৯ ইং

দৌলতখানে ঈদের ছুটিতে সড়কে প্রাণ গেলো ৩ জনের

দৌলতখানে ঈদের ছুটিতে সড়কে প্রাণ গেলো ৩ জনের

ঈদের ছুটিতে বেড়েছে সড়ক দুর্ঘটনা। গত পাঁচ দিনে রাজধানীসহ সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৬০ জনেরও বেশি। এ সময় আহত হয় দেড় শতাধিক। কেবল ঈদের দিনই সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান ২৩ জন। তবে এ সময় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২২ জন।

এর মধ্যে দৌলতখানে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হয় ৩ জন। তারা হলেন -মেহেদি,  সোহাগ ও ইকবাল।

মেহেদি গত ০৩-০৬-১৯ইং তারিখ ব্যাচের ইফতার পার্টি ছিল। ইফতার শেষ করে প্রায় সবাই বাইকে ঘুরতে বের হয়।
বাংলাবাজার পেরিয়ে একটু সামনে বালুর পাইপের উপর দিয়ে যাওয়ার সময় মেহেদি বাইকের পেছন থেকে ছিটকে পড়ে যায়। মাথা সরাসরি পাইপের সাথে আঘাত পাওয়ায়।

সাথে সাথেই কান দিয়ে রক্ত বের হয় এবং বুমি করা শুরু করে। এমন অবস্থায় বন্ধুরা তাকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিলে অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসক তাকে বরিশাল হাসপাতালে প্রেরণ করেন মেহেদি বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদস্য হওয়ায় তার উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৪ তারিখ সকালে তাকে হেলিকপ্টাররে যুগে ঢাকা সিএমএইচ নেয়া হয়। সেখানে ডাক্তাররা পরিক্ষা নীরিক্ষা করেন দেখেন মেহেদির ব্রেন ড্যামেজড। মাথায় প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছিল। এই পর্যন্ত সে লাইফ সাপোর্টে ছিল। আজ সকাল ৭ টায় মেহেদি সিএম এইচে মারা জান।

এছাড়া সোহাগ ও ইকবাল দুইভাই ভোলার বোরহানউদ্দিনে বাস চাপায় নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে উপজেলার ইদারা রাস্তার মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, দৌলতখান উপজেলার ছোটধলী এলাকার আবুল কালামের ছেলে।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এনামুল হক জানান, সোহাগ ও ইকবাল মোটরসাইকেলে করে ভোলা যাচ্ছিল। পথে ইদারা মোড় এলাকায় রবিন চৌধুরী এক্সপ্রেস নামের একটি বাস তাদের চাপা দিলে সোহাগ ঘটনাস্থলেই মারা যান।

তিনি আরো বলেন, স্থানীয়রা নিহত সোহাগের ভাই আহত ইকবালকে উদ্ধার করে বোরহানউদ্দিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকেও মৃত ঘোষণা করেন।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি