LalmohanNews24.Com | logo

১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

দৌলতখানে অপহরণের এক মাস পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার: আটক ১

দৌলতখানে অপহরণের এক মাস পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার: আটক ১

দৌলতখানে চরখলিফা ইউনিয়নের ৬ নং দিদারুল্লাহ গ্রামের চরখলিফা বালিকা দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেনীর  ছাত্রী রিয়াকে  বরিশাল মুলাদী থেকে    উদ্ধার করেছে দৌলতখান থানা পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই  ইমাম প্রয়োজনীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল সোমবার  বরিশাল মুলাদী এলাকা থেকে   অপহিৃতা রিয়াকে  উদ্ধার করে আজ মঙ্গলবার ডাক্তরী পরীক্ষা করার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এই বিষয় দৌলতখান থানায় গতকাল  একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে দৌলতখান উপজেলার চরখলিফা  গ্রামের ফরিদের  মাদ্রাসা পড়–য়া মেয়ে রিয়াকে  চরখলিফা বালিকা দাখিল মাদ্রাসায়   পড়াশুনা চলাকালিন সময়ে একই  গ্রামের নুরে আলমের  ছেলে  রাজিব বেশকিছু দিন ধরে মাদ্রাস্য যাওয়া-আসার সময় প্রায় পথরোধ করে উত্ত্যক্ত করতো। পারিবারিক ভাবে বিভিন্ন সময় বহু বার তাকে নিষেধ করলে সে আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে অপহরণের হুমকি দিতে থাকে। সব ঠিকঠাক ভাবে চললেও গত ১৭ সেপ্টেম্বর মাদ্রাসা থেকে বাড়ী যাওয়ার সময়  রাস্তা থেকে  পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক রাজিব  তার দলবল নিয়ে তার চার বন্ধু -১ নাজিম ২ জামাল ৩ রাকিব ৪ আলাউদ্দিন এদের সহযোগীতায়  রিয়াকে  জোরপূর্বক অপরহরণ করে   অটোরিকশা যোগে  তুলে নিয়ে যায় ওই দিন রিয়ার পরিবারের লোকজন সম্ভাব্য সকল জায়গায় অনেক খোজাখুজি করে তার কোন সন্ধান না পাওয়ায় রিয়ার বাবা ফরিদ  দৌলতখান থানায় অপহরণের মূলহোতা রাজিব  সহ পাচজনকে আসামী করে গত ১৭ সেফটেম্বর দৌলতখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

কিছুদিন পড়  তাকে  জোরপূর্বক  ঢাকায় নিয়ে যায় রাজিব ও তার সহযোগী বন্ধুরা  এরপর  তাকে বাসায় পাঠানোর কথা বলে সদরঘাট এনে পালিয়ে যায় রাজিব সহ তার সহযোগী বন্ধুরা  অপহিৃতা রিয়া  ভোলার লঞ্চ ভেবে  বরিশালের লঞ্চে উঠলে  তারপর লঞ্চের বিতরে মাদ্রাসার ছাত্রী রিয়া একা থাকায় সুযোগ গ্রহন করেন বেল্লাল নামের এক যাত্রী – বেল্লাল রিয়ার লঞ্চের বিতরে  এসব ঘটনা শুনার পর তাকে নিয়ে যায় বরিশাল  মুলাদী এলাকায় সেখানে স্বামী স্ত্রীর পরিচয় ভাড়াবাসায় উঠে দুজনে, তাদের মধ্যে স্বামী স্ত্রীর শারিরিক সম্পর্ক ঘটেছে   সেখান থেকে তাদের কে গোপন সংবাদের বিত্তিতে  আটক করেন দৌলতখান থানা পুলিশ। আটক কৃত বেলাল   মিরগঞ্জের খলিল গাজীর ছেলে।।

দৌলতখান থানার অফিসার ইনচার্জ এনায়েত হোসেন জানান, মেয়েটি অপহরণ করার পর থেকেই আসামীরা তাকে বিভিন্ন জায়গায় আটকে করে রাখে। বারবার স্থান পরিবর্তন করার কারণে আমাদের কয়েকটি অভিযান ব্যার্থ হয়েছে

ইতিমধ্যে অপহিৃতা রিয়াকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং বেল্লাল নামের এক আসামীকেও আটক করা হয়েছে। বাকি আসামীদের বিরুদ্ধে দ্রত আইনানুগ ব্যবস্থ্যা গ্রহণ করা হবে।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি