LalmohanNews24.Com | logo

১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং

দখল-দুষণে বিলীন হচ্ছে লালমোহন বাজারের ঐতিহ্যবাহী খাল

দখল-দুষণে বিলীন হচ্ছে লালমোহন বাজারের ঐতিহ্যবাহী খাল

ভোলার লালমোহন লঞ্চঘাট থেকে সদর বাজারের ভিতর দিয়ে বয়ে যাওয়া খালটি দিয়ে একসময় যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করতো। সময়ের পরিক্রমায় লঞ্চঘাটটির নতুন স্থান হলেও ধীরে ধীরে খালটি দখলের পায়তারা করতে থাকে স্বার্থান্বেষী মহল। ফলে ময়লা ফেলার ডাস্টবিন হিসেবেও খালটিকে বেছে নিয়েছে কেউ কেউ।

খালটিতে লঞ্চ চলাচল না থাকলেও এখান দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে লালমোহন বাজার ব্যবসায়ীদের নানাবিধ পণ্য আনা নেয়া করা হয় বলে খালটি বাজার ব্যবসায়ীদের প্রাণের স্পন্দন। শুধু তাই নয়, লালমোহন বাজারের ভিতরে থাকা কয়েকটি পুকুর বালু ভরাট ও মার্কেট হয়ে যাওয়ার ফলে অগ্নিকাণ্ডের মত ভয়াবহ দুর্ঘটনায় পানির জোগান দিতে খালটির বিকল্প নেই। বাজারের জলাবদ্ধতা নিরসনেও এ খালটির ভূমিকা অপরিসীম। এসব দখলদারিত্ব সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নাকের ডগায় চললেও তাদের কোনও তৎপরতা দেখায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাজারের অনেক ব্যবসায়ী।
লালমোহন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আহবায়ক ও উপজেলা আওয়ামী লীগ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলী আহমদ (বিএ) বলেন, লালমোহন বাজারটি ভোলা জেলার ব্যবসায়ীক প্রাণ কেন্দ্র। বোরহানউদ্দিন, তজুমদ্দিন, চরফ্যাশন ও মনপুরাসহ একাধিক উপজেলার ব্যবসায়ীগণ এ বাজার থেকে তাদের মালামাল সংগ্রহ করেন। আর এসব পণ্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নৌ-রুটে আনা-নেয়া হয়। অথচ একটি কুচক্রীমহল খালটি দখলে উঠে পড়ে লেগেছে। এতে করে খালের নাব্যতা সংকট দেখা দেয়ায় সড়ক পথে পণ্য আনতে অতিরিক্ত খরচ গুনতে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। ফলে ভোগ্য পণ্যসহ সকল মালামালের দাম বেশি হচ্ছে। শিগগিরই খালটি রক্ষা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এগিয়ে আসা বলে মনে করছি।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান রুমি বলেন, অবৈধ দখল হওয়া যতগুলো খাল রয়েছে, আমরা সবগুলো খালের প্রতিবেদন পাঠিয়েছি। শিগগিরই খালটি উদ্ধারে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হবে।
Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি