LalmohanNews24.Com | logo

২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়ার জন্য আমাকে বাধ্য করা হয়েছিল’

‘টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়ার জন্য আমাকে বাধ্য করা হয়েছিল’

টাইগার তারকা সাকিব আল হাসানের মন্তব্যে ইতোমধ্যে বেসামাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সেই চাপ কাটিয়ে উঠার আগেই এবার মঞ্চে হাজির হলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফলতম সাবেক এই অধিনায়ক এবার মুখ খুললেন টি-টোয়েন্টি থেকে তার অবসর নেওয়ার প্রসঙ্গেও।

কলম্বোতে ২০১৭ সালের ৬ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস করতে যান অধিনায়ক মাশরাফি। কিছুক্ষণেই টস ছাপিয়ে আলোচনায় কেবল মাশরাফি। ততক্ষণে ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটকে বিদায় বলে দিয়েছেন তিনি। শুরু হয় নানা জল্পনা-কল্পনা।

এরপর অনেক সময়ে পেরিয়ে গেলেও এ নিয়ে কথা বলেননি মাশরাফি। অবশেষে এ নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার। বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি মাশরাফি বলেছেন, টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়ার জন্য তাকে বাধ্য করা হয়েছিল।

মাশরাফি বলেন, ‘ওইখানে আমাকে করতেই হতো, এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল যে আমাকে করতেই হতো (অবসর)। নিতে হয়েছে, বিস্তারিত বলতে যাব না। আমি কার থেকে সহযোগিতা পেয়েছি আমার সময়ে?

২০১১ বিশ্বকাপে ইনজুরিতে পড়ে ডাক্তার ছাড়পত্র দেয়ার পরও আমাকে দলে নেয়া হয়নি। ২০১৭ সালে যখন অবসরে গেলাম, তখন আমার পাশে কেউ ছিল না দেশের মানুষ ছাড়া।’

শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে তড়িঘড়ি করে মাশরাফির সঙ্গে বৈঠকে বসেন বিসিবির কর্তারা। তখনও তার গায়ে ছিল ট্রাভেলকিট। এ নিয়ে অভিজ্ঞ এই পেসার বলেন, ‘আমি যখন শ্রীলঙ্কায় পা রেখে হোটেলে যাই, তখন ট্রাভেল স্যুটও খুলিনি।

তখনই নিচে আমার সঙ্গে বৈঠকে বসে। ওই বৈঠকের পরই আমি ভাবি যে, কিছু একটা গোলমাল আছে। আমি সব সময় বলে আসতাম আমর সিদ্ধান্তগুলো কিন্তু হুট করেই হবে। আমি যখন বুঝতে পেরেছি সবার বিপরীতে থাকার প্রয়োজন নেই, তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

Facebook Comments Box


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি