LalmohanNews24.Com | logo

১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

জাপানের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ইয়োশিহিদে সুগা

জাপানের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ইয়োশিহিদে সুগা

জাপানের মন্ত্রিপরিষদের মুখ্যসচিব ইয়োশিহিদে সুগা ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এলডিপি) প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন। ফলে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন তিনি।

শিনজো আবের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত ইয়োশিহিদে সুগার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। খবর জাপান টাইমস ও কিয়োডোর।

সোমবার ক্ষমতাসীন দলটির নেতৃত্ব নির্বাচনের ভোটে তিনি নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছেন। এলডিপির সভাপতি নির্বাচনে জাপানের স্থানীয় সময় সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দলীয় এমপিদের ৩৯৪ ভোট আর ৪৭টি প্রদেশের তৃণমূল নেতাদের ১৪১ ভোটগ্রহণের কথা ছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত একটি ভোট কম পড়ে। ভোটের ফল বিকাল সাড়ে ৩টায় প্রকাশ করা হয়।

প্রকাশিত ফলে দেখা গেছে, ৫৩৪ ভোটের মধ্যে ৭১ বছর বয়সী ইয়োশিহিদে সুগা পেয়েছেন ৩৭৭ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা পেয়েছেন ৮৯ ভোট আর অপর প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী শিগেরু ইশিবা পেয়েছেন ৬৮ ভোট।

নিয়মানুযায়ী, ক্ষমতাসীন দলের নির্বাচিত সভাপতিই প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। আগামী বুধবার পার্লামেন্টে আরেকটি ভোটে জাপানের প্রধানমন্ত্রী বেছে নেয়া হবে।

এর আগে, অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে গত ২৮ অগাস্ট হঠাৎ করেই জাপানের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন শিনজো আবে। জাপানে সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা আবে বেশ কয়েক বছর ধরে জটিল ধরনের আলসারে ভুগছিলেন।

এদিকে, আবের পদত্যাগের পর তার দল থেকে প্রধানমন্ত্রীর হওয়ার প্রতিযোগিতায় নামেন সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী শিগেরু ইশিবা, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও দলটির অন্যতম নীতি নির্ধারক ফুমিও কিশিদা এবং শিনজো আবের আর্শীদবাদপুষ্ট ও দীর্ঘদিনের মন্ত্রীপরিষদ সচিব ইয়োশিহিদে সুগা।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এনএইচকে বলছে, ইয়োশিহিদে সুগা জয়লাভ করবেন তা নিশ্চিতভাবে বলা যায়।

এছাড়াও, প্রভাবশালী বার্তা সংস্থা কিয়েডো নিউজ লিখেছে – ইয়োশিহিদে সুগা ক্ষমতাশীন এলডিপির সাংসদদের ৭৭ শতাংশ ভোট পেতে যাচ্ছেন, যা তার জয়ের জন্য যথেষ্ট।

তবে, রক্ষণশীল রাজনৈতিক দল এলডিপি নতুন নেতা নির্বাচন করার পর, বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) পার্লামেন্টে আরেকদফা ভোট হবে। যদিও, পার্লামেন্টে এলডিপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় তাদের নতুন নেতাই জাপানের প্রধানমন্ত্রী হবেন এটি প্রায় নিশ্চিত।

অন্যদিকে, ১৯৭৩ সালে টোকিও হোসেই নামক এক নৈশ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে স্নাতক ইয়োশিহিদে সুগার জন্ম হয় এক কৃষক পরিবারে। নিজের উপার্জিত অর্থে পড়াশুনা করা সুগা ১৯৮৬ সালে এলডিপিতে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ১৯৯৬ সালে কানাজাওয়া প্রদেশ থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন। শিনজো আবের নেতৃত্বাধীন সরকারের পুরো সময়জুড়ে মন্ত্রি পরিষদের সচিবের দায়িত্ব থাকা ৭১ বছর বয়সী সুগা সরকারের নীতি নির্ধারকের ভূমিকায়ও ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ক্ষমতাসীন এলডিপি’র নেতা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। আর এর মধ্যে দিয়ে দায়িত্বে আসবেন নতুন প্রধানমন্ত্রী, যিনি শিনজো আবের রেখে যাওয়া প্রধানমন্ত্রীত্বের মেয়াদ (২০২১ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত) পূরণ করবেন।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি