LalmohanNews24.Com | logo

২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

করোনা এসেছে বাংলাদেশ বা ভারত থেকে, চীনা বিজ্ঞানীদের দাবি

করোনা এসেছে বাংলাদেশ বা ভারত থেকে, চীনা বিজ্ঞানীদের দাবি

চীনের শহর উহান যে করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল তা নিয়ে সারা বিশ্বের বিজ্ঞানী তথা মানুষের মাঝে কোন সন্দেহ না থাকলেও এবার চীনা বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, করোনা এসেছে ভারত বা বাংলাদেশ থেকে! ধারণা করা হচ্ছে, এর মাধ্যমে তারা উহানের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ অন্যের ঘাড়ে চাপানোর চেষ্টা করছেন।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড পত্রিকা সান এ নিয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছেঃ

করোনা এসেছে  ভারত বা বাংলাদেশ থেকে, এমন দাবি করে চীনা বিজ্ঞানীরা নিজেদের শহর উহানের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ স্থানান্তরের চেষ্টা করছেন।

চীনের সাংহাই ইনস্টিটিউট ফর বায়োলজিকাল সায়েন্সের গবেষকদের একটি গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরে উহানে প্রাদুর্ভাবের আগেই ভারতীয় উপমহাদেশে ভাইরাসটির অস্তিত্ব ছিল। তবে এই তত্ত্বটি বিতর্কিত।

‘দ্য আর্লি ক্রিপটিক ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ইভলিউশন অফ সার্স-কোভ -২ ইন হিউম্যান হোস্টস’ শীর্ষক এই গবেষণাটি উহানের ওয়েট মার্কেট থেকেই ভাইরাসটির উদ্ভব হয়েছিল বলে বিজ্ঞানীদের মধ্যে থাকা সাধারণ ধারণাকে চ্যালেঞ্জ করেছে।

এটি ১৭ নভেম্বর বিশ্ববিখ্যাত মেডিকেল জার্নাল ল্যানসেটের প্রিপ্রিন্ট প্ল্যাটফর্ম SSRN.Com-এ পোস্ট করা হয়েছে এবং ১৭ টি ভিন্ন দেশ প্রদত্ত ভাইরাসের স্ট্রেইনের উপর ভিত্তি করে করা হয়েছে।

গবেষকরা লিখেছেন: “আমাদের ফলাফল দেখায় যে উহান সেই জায়গা নয় যেখানে মানুষ থেকে মানুষে SARS-CoV-2 সংক্রমণ প্রথম ঘটেছিল।”

এতে আরও বলা হয়, প্রথম প্রাদুর্ভাবের ক্ষেত্রটির মধ্যে সবচেয়ে বড় জিনগত বৈচিত্র্য থাকতে হবে – যেমন ভারত এবং বাংলাদেশের শহরগুলো।

উল্লেখ্য, চীনের উহানের একটি বাজার থেকেই যে প্রথম করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল- এমন দাবি প্রত্যাখ্যান করে গত মাসেও চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনিং এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে দাবি করে বলেছিলেন, ‘গত বছর বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় ভাইরাসটি ছড়িয়েছিল। আমরাই প্রথম সবাইকে এ বিষয়ে জানিয়েছে এবং এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে।’।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি