LalmohanNews24.Com | logo

১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

এক হতভাগা রাবেয়া খাতুন!

এক হতভাগা রাবেয়া খাতুন!

রাবেয়া খাতুন। বয়স ৮৫। থাকেন ভোলার লালমোহন উপজেলার ধলিগৌরনগর ইউনিয়নের পাটওয়ারীর হাট এলাকায়। স্বামী হেজন আলী। মারা গেছেন প্রায় ৪৮ বছর আগে। এরপর থেকে মানুষের কাছে হাত পেতেই কোনো মতে এক মেয়েকে নিয়ে সংসার চলেছে রাবেয়া খাতুনের। ত্রিশ বছর আগে সে মেয়েকেও বিয়ে দিয়ে দিয়েছেন। মেয়ে এখন স্বামী সন্তান নিয়ে থাকেন অন্যত্র। তবে হতভাগা রাবেয়া খাতুনের বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে দুর্ভোগও বেড়েছে। যে বেলা মানুষের সহযোগিতা জুটে সে বেলাই খেতে পারেন তিনি। শরীরটাও ভালো নেই তার।

প্রেসার, বাত ব্যথা আর এলার্জি বাসা বেধেছে রাবেয়া খাতুনের শরীরে। এর জন্য ভালো কোনো চিকিৎসাও করাতে পারেনি তিনি। মানুষের দেয়া সহযোগিতায় পল্লী চিকিৎসকের কাছ থেকে কিছু ওষুধ খেয়ে ভালো থাকার চেষ্টা করছেন প্রতিনিয়ত। তবে বয়স ৮৫ হলেও সরকারী কোনো সহযোগিতাই জুটেনি রাবেয়া খাতুনের ভাগ্যে। বঞ্চিত বয়স্ক-বিধবা ভাতা থেকেও। এমনকি মাথা গোঁজার শেষ সম্বল বসত ঘরটিও নড়বড়ে। বৃষ্টি হলেই পানি পড়ে। এক কথায় বলতে গেলে সত্যিই একজন হতভাগা নারী রাবেয়া খাতুন। বঞ্চিত সরকারী সকল সুযোগ সুবিধা থেকে।

প্রতিবেদককে রাবেয়া খাতুন বলেন, স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকেই মানুষের কাছে ভিক্ষা করে চলছি। এতো বয়স হয়েছে তবুও বয়স্ক-বিধবা কোনো ভাতাই পাইনি। আর কত বয়স হলে ভাতা পাবো তাও জানি না। বয়স হয়েছে, ঠিক মত চলতেও পারি না। তাই সরকারের কাছে দাবী করছি একটি বয়স্ক অথবা বিধবা ভাতার ব্যবস্থা করার।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি