LalmohanNews24.Com | logo

৫ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২০শে জুলাই, ২০১৯ ইং

এক নির্বাচনেই দেড় যুগের ইউপি চেয়ারম্যান তিনি!

এক নির্বাচনেই দেড় যুগের ইউপি চেয়ারম্যান তিনি!

ভোলার লালমোহন উপজেলার ৭নং পশ্চিম চরউমেদ ইউনিয়ন। ২০০৩ সালের ২২ ফেব্রæয়ারী সারাদেশের মতো এই ইউনিয়নটিতেও নির্বাচন হয়। তৎকালীন সময়ে নিজ দল ক্ষমতায় থাকার সুবাধে অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত কোনো নির্বাচন ছাড়া তিনি দেড় যুগেরও অধিক সময় ধরে চেয়ারম্যান হিসিবে রয়েছেন।

সূত্র জানায়, ২০১১ সালে ইউনিয়নটির একটি ভোট কেন্দ্র বিচ্ছিন্ন চরকঁচুয়াখালীতে স্থানান্তরের দাবী জানিয়ে জৈনিক সিরাজুল হক নামের এক ব্যক্তি উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করেন। দায়িত্ব ভোগের জন্য এই মামলাটিও ওই ব্যক্তিকে দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানেই করান বলে জানা যায়। যার কারণে ১৯ বছর যাবৎ ইউনিয়নটিতে বন্ধ রয়েছে নির্বাচন। একারণে নিজের মন মত চলছে ইউনিয়ন পরিষদের সকল কার্যক্রম।

সাবেক চেয়ারম্যান হাজ্বী আবু তাইয়েব বলেন, ব্যক্তি স্বার্থের চেয়েও জনগনের মৌলিক চাহিদা আমাদের আগে দেখতে হবে। কারণ জনগনের মৌলিক চাহিদা পূরনের জন্য তারা জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করেন। তাই জনগনের মৌলিক চাহিদা আদায়ের জন্য অতি শিগগিরই এ ইউনিয়নে নির্বাচন ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

এছাড়াও স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, একই ব্যক্তি বার বার ক্ষমতার চেয়ারে থাকায় জনগন তাদের সঠিক সেবা পাচ্ছে না। ক্ষমতার পরিবর্তন না হলে নেতৃত্বের বিকাশ ঘটেনা যার ফলে জনগনও সুফল পায়না। এ অবস্থায় দ্রæত ওই ইউনিয়নে নির্বাচনের জোর দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।

এব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবু ইউসুফ মামলার কথা অস্বীকার করে বলেন, ইউনিয়নটিকে দুই ভাগে ভাগ করা হবে। যার কারণে নির্বাচন বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আমির খসরু গাজী বলেন, এই ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশন থেকে কয়েক দফা আদেশ দিলেও একটি মামলা থাকায় নিবার্চন করা যাচ্ছে না। তবে ওই মামলা নিষ্পত্তি হলেই খুব শিগগিরই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি