LalmohanNews24.Com | logo

৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ঈদযাত্রায় আনন্দ ও ভোগান্তি

ঈদযাত্রায় আনন্দ ও ভোগান্তি

নুরুল আমিন: ইট-পাথরের শহর ছেড়ে নাড়ির টানে ঈদে বাড়ি ফেরে মানুষ। চাকরি, ব্যবসা ও লেখাপড়াসহ  জীবনের নানা প্রয়োজনে মানুষ তার ভিটেমাটি ছেড়ে দূর দূরান্তে অবস্থান করে। যে যেখানেই থাকুক না কেন ঈদের ছুটিতে শৈশব কৈশোরের স্মৃতি বিজড়িত আপন ঠিকানায় ফিরে আসার জন্য মন ব্যাকুল হয়ে ওঠে। তাইতো হৃদয়ে লালন করা হাজারো স্বপ্ন পুরনের আশায় ব্যস্ত থাকা মানুষ ঈদে ছুটির সুযোগে অধীর আগ্রহে অবিরাম ছুটে চলে  চেনা মুখগুলোর কাছে। পরিবার পরিজনের সঙ্গে ঈদ করার আনন্দই আলাদা।
ঈদে আপনজনের সঙ্গে মিলিত হওয়ার প্রয়াস মানুষের মধ্যে যুগ যুগ ধরে চলে আসছে।  ঈদযাত্রা যেমন আনন্দ আছে, তেমনি ভোগান্তি আছে। ঘরমুখী মানুষের ঈদযাত্রার জন্য দেশের কোনো পথই স্বস্তিদায়ক নয়। সড়কপথ, রেলপথ ও নৌপথসহ সব পথেই রয়েছে জনদুর্ভোগ। কোনো পথেই স্বস্তির কোনো চিত্র পরিলক্ষিত হয় না। তবুও মানুষ থেমে নেই। ঈদ এলেই বিরামহীন ছুটে চলে আপনজনের কাছে।

ঈদে ঘরমুখী মানুষ নিরাপদ ভ্রমণের প্রত্যাশা সব সময় করে। কিন্তু সব সময় আমাদের ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন নিরাপদ হয় না। নানা কারণে ঈদের পূর্ব মূহুর্তে নিরানন্দের সুর বেজে ওঠে। যানবাহনের অপ্রতুলতা, ফিটনেসবিহীন পরিবহন, সড়কে বেহাল দশা ও অব্যবস্থা, টিকেট কালোবাজারি, চাঁদাবাজি, যানজট, ডাকাতি, ছিনতাই, দুর্ঘটনা, অনুন্নত যোগাযোগ, জাল নোট ইত্যাদি ঈদযাত্রায় ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আবার কখনও কখনও শ্রমিক অসন্তোষ কিংবা অন্য কোনো আন্দোলনের কারণে  সড়ক বা নৌপথ অবরোধে জনদুর্ভোগ চরম হয়ে ওঠে।

আবার অসাধু ব্যক্তিদের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির কারণেও জনদুর্ভোগ বাড়ে। অতিরিক্ত টাকা উপার্জনের জন্য অবৈধ পন্থায় সিন্ডিকেটের মাধ্যমে টিকেটের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে। ফলে টিকেট চলে যায় কালো বাজারে। ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও বৈধ পথে টিকেট পায় না। অতিরিক্ত টাকা দিয়ে উচ্চ মূল্যে যাত্রীরা টিকেট কিনতে বাধ্য হয়। আসল টিকেটের পাশাপাশি নকল টিকেট সরবরাহ করা হয়। এছাড়া ফুটপাতে দোকানপাট, যেখানে সেখানে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠানামা করা, রাস্তার মাঝে পার্কিং ও যানবাহনে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ইত্যাদি কারণে সড়কে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। এসব কারণে ঈদযাত্রী চরম ভোগান্তির মধ্যে পড়ে।
ঈদ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থানে হাট-বাজার, সড়ক- মহাসড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় ভাসমান বাজার ও অটোরিকশা, টেম্পু বা মটরসাইকেলের গ্যাদারিং ও স্ট্যান্ড ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অনেক সময় প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ঈদে বাড়ি ফেরা মানুষের দুর্ভোগ হয়।

ঈদে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের কাছ থেকে যানবাহনে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে দেখা যায়। এতে সাধারণ মানুষ মনে খুব কষ্ট পায়। দেশে বিদ্যমান এসব অনিয়মের অবসান কবে হবে তা জানা নেই। পরিবহনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তব্যরত কিছু অসাধু কর্মকর্তা ও  কর্মচারীর কারসাজি আর সুষ্ঠু তদারকির অভাবে বছরের পর বছর ধরে এসব অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলার দায় সাধারণ মানুষকে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে নিজের জীবনের বিনিময়ে শোধ করতে হচ্ছে। যাত্রীদের সুবিধার্থে বিভিন্ন সময় নানা ধরনের পরিকল্পনা ও উদ্যোগ গ্রহণের কথা শোনা গেলেও উল্লেখযোগ্য কোনো অগ্রগতি চোখে পড়ছে না।

ঈদের সময় এমনিতেই বাড়তি মানুষের চাপ থাকে। বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি, বিশৃঙ্খলা ও অব্যবস্থাপনা যাত্রাপথকে স্থবির করে তোলে। তাই যানবাহন চলাচলের পথ সুগম করার জন্য কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। দেশের সর্বস্তরের মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ঈদযাত্রীর সুবিধার কথা বিবেচনা করে সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সময়োপযোগী ব্যবস্থা নেবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

লেখক : সাংবাদিক, কলামিস্ট ও প্রাবন্ধিক, লালমোহন, ভোলা। nurulamin911@gmail.com, 01759648626.

Facebook Comments


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয়

লালমোহন, ভোলা

মোবাইলঃ 01712740138

মেইলঃ jasimjany@gmail.com

সম্পাদক মন্ডলি

error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!! মোঃ জসিম জনি